মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

হাসপাতাল ও ক্লিনিক

হাসপাতাল ও ক্লিনিক

ফেনী জেলারস্বাস্থ্য বিভাগীয় প্রতিষ্ঠান সমূহের তালিকা   
১) সিভিল সার্জন অফিস, ফেনী

২) ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতাল, ফেনী।


৩) ৫০ শয্যাচালুকৃত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ০২টি
   ১।পরশুরাম

   ২। ছাগলনাইয়া

 

৩) ৫০ শয্যাউন্নীতকরনের পক্রিয়াধীন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ০২টি
    ১।দাগনভুইয়া

    ২। সোনাগাজী

 

৪) ৩১ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ০১টি
    ১) ফুলগাজী

 

৫) শয্যা বিহীন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১টি- সদরউপজেলা।


৬) বক্ষব্যাধী হাসপাতাল ০১টি (শুধুমাতত্র বির্হিবিভাগ কার্যক্রম চালু আছে।)

 

৭) বক্ষব্যাধী ক্লিনিক ০১টি।

 

৮) ২০ শয্যা বিশিষ্ট ট্রমা সেন্টার ০১টি ।

 

৯) নাসিং ট্রেনিং সেন্টার-০১টি।


৯) ইউনিয়ন উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ১৯টি-
    ১। সদর উপজেলা-০৪টি :- ফাজিলপুর, খাইয়ারা,কালিদহ, শর্শদী।

    ২। সোনাগাজী-০৫টি :- মংগলকান্দি, কুটিরহাট, চরচাইন্দয়া, মিতগঞ্জ, আমিরাবাদ।

    ৩। দাগনভূইয়া-০২টি :- দাগনভুইয়া, সুজাতপুর।

    ৪। ছাগলনাইয়া-০৩টি :- পাঠাননগর, ঘোপাল, শুভপুর।

    ৫। পরশুরাম-০২টি :- সুবার বাজার, নোয়াবাজার।

    ৬। ফুলগাজী-০৩টি :- ফুলগাজী, মুন্সিরহাট, আমজাদহাট।

 

১০) চালুকৃত কমিউনিটি ক্লিনিকের সংখ্যা:- ১৩৬টি।

    ১। সদর উপজেলা-৩৫টি

    ২। সোনাগাজী-৩২টি

    ৩। দাগনভূইয়া-২১টি

    ৪। ছাগলনাইয়া-২৪টি

    ৫। পরশুরাম-১২টি

   ৬। ফুলগাজী-১২টি

 

স্বাস্থ্য সেবা সমুহঃ-
    ১) মাঠ পর্যায়ে ইপিআই কার্যক্রম বাস্তয়ন (স্বাস্থ্য কর্মীদের মাধ্যমে)।
    ২) ডায়রিয়া ও এআরআই প্রতিরোধ (স্বাস্থ্য কর্মীদের মাধ্যমে)।
    ৩) ওয়ার্ড পর্যায়ে প্রতি ৬০০০ (ছয়) হাজার লোকের মধ্যে কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে সেবা প্রদান।
    ৪) ০-১ বয়স পর্যন্ত শিশু এবং প্রত্যেক মায়েদেরকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো।
    ৫) ৬-১২ বছর বয়সী শিশুদেরকে বৎসরে ২ বার কৃমি নাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো।
    ৬) স্বাস্থ্য কর্মীদের এবং কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডরদের মাধ্যমেমাঠ পর্যায়ে উঠান বৈঠকের

        মাধ্যমে,কমিউনিটি ক্লিনিকে এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পুষ্টি, আয়োডিন ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিষয়ে   

        স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রদান।